shubhobangladesh

সত্য-সুন্দর সুখ-স্বপ্ন-সম্ভাবনা সবসময়…

করোনাকাল

Corona Time
Corona Time

সুনীল শর্মাচার্যের কবিতা

করোনাকাল

করোনা কাল

কোথাও শান্তি নেই—

গহীন ভয় থেকে ছিটকে যায় মুখ

.

খোলা জানালার পাশে

উড়ুখুড়ু হাওয়া,

রাত

অসহায় দর্শক

.

ভীরুরা অনন্ত মেখে ঘুমিয়ে পড়েছে

.

আর বিবর্ণ চাঁদ

রাতকে চুমুতে বুক খুলে দেয়

করোনা কাল

দুই

এই যে নিজেকে ঘরবন্দী করেছি :

এখন একা,ভয় মুখ,প্রসন্ন না…

নীল আকাশ ভালো লাগে না

.

এই যে নদী, জল, সবুজ গাছপালা

জানালার দৃশ‍্যে ছড়িয়ে আলো…

ভেতরে একা, বাইরেও একা,

আহা, আলো, তুমিও একা না—

.

এই যে আলো, দৃষ্টির আলো—

বাতাসে ছড়িয়ে সূর্যের আলো

করোনা কাল

তিন

পেছনে ফিরলে পিঠে ছুরি বসাবে নিয়তি।

আগুনের পাশে বসো,

ওই ছায়াটির পাশে বসো—

যেখানে তোমার পিতৃ-রক্ত লেগে আছে।

.

এভাবে বাঁচে না কেউ, ভুলে শিকড়ের টান!

.

বাতাসে বাতাসে বাজে গাছেদের পাতার বিষাদ…

করোনা কাল

চার

পাপের জীবাণু বপন করেছে মানুষ নিজে—

তার কোনো ত্রাণ নেই, কোনো মুক্তি নেই,

.

পাপে পাপে তার মৃত্যু ডেকে আনে…

করোনাকাল

পাঁচ

সময়, বড় অসময়; মানুষ সম্পর্কের সূতো ছিঁড়ে

প্রত্যেক মানুষ একা, ঘরবন্দীযুদ্ধে অন্নের কাঙাল

.

বাজারে বাজারে উপচে পড়ে ভিড়

বাঁচার রসদ জোগাড়ের তাড়ায়

গায়ে গায়ে লোক থিকথিক…

.

দুরত্ব থাকে না, তবু সংক্রমণের ভয়

প্রত্যেকের চোখে—

ঋতু রহস্য আর কেউ খোঁজে না!

.

সময়, বড় অসময়; কে কাকে গিলে খাবে

কেউ তা বুঝবে না!

করোনা কাল

ছয়

চারদিকে তপ্ত, গরল বাতাস…

এসেছে পাতা ঝরাতে, জীবন ঝরাতে…

.

জবার ডালে ডালে রক্ত ঝরছে

কোনো মক্ষির গুঞ্জন নেই…

.

মানুষের দশা খাঁচাবন্দী পাখি

ঘরের চার দেয়ালে

ডানা ঝাপটানোর শব্দটুকুও নেই!

করোনাকাল

সাত

জানালার ফাঁকে

নীল আকাশটা দেখার চেষ্টা নেই

.

বাইরে অপেক্ষায় ঘাতক করোনা—

ঘর থেকে পা বাড়াবার সাহস নেই….

ঘরে বসে, ঘরে বসে জবুথবু

ঘণ্টায় ঘণ্টায় হাত ধুই—

.

মুখ ঢাকি মুখোশে

কিন্তু

মুখোশের অভিনয় নেই।

করোনা কাল

আট

সারাদুপুর পাখিদের কিচিরমিচির

সারাদুপুর বিছানায় গড়াগড়ি

ব্রহ্মাণ্ড নিয়ে চিন্তা ভাবনায়

বিপন্নতা আসে—

.

সমস্ত দিকে গা ছমছম ঘর-বাড়ি…

করোনাকাল

নয়

আজ যা সংকট; কাল তা থাকবে না—

.

আবার নতুন সকাল এসে দেবে হাতছানি

.

অনেক মৃত্যু, অনেক শোক, ধুয়ে দেবে

ভোরের বাতাস

.

আবার আমরা হাঁটবো পথে

পরস্পর সন্দেহ মুছে

প্রত্যয়ী বিশ্বাসে!

…………………

পড়ুন

কবিতা

সুনীল শর্মাচার্যের একগুচ্ছ কবিতা

সুনীল শর্মাচার্যের ক্ষুধাগুচ্ছ

লকডাউনগুচ্ছ : সুনীল শর্মাচার্য

সুনীল শর্মাচার্যের গ্রাম্য স্মৃতি

করোনাকাল : সুনীল শর্মাচার্য

গল্প

উকিল ডাকাত : সুনীল শর্মাচার্য

এক সমাজবিরোধী ও টেলিফোনের গল্প: সুনীল শর্মাচার্য

আঁধার বদলায় : সুনীল শর্মাচার্য

প্রবন্ধ

কবির ভাষা, কবিতার ভাষা : সুনীল শর্মাচার্য

ধর্ম নিয়ে : সুনীল শর্মাচার্য

মুক্তগদ্য

খুচরো কথা চারপাশে : সুনীল শর্মাচার্য

কত রকম সমস্যার মধ্যে থাকি

শক্তি পূজোর চিরাচরিত

ভূতের গল্প

বেগুনে আগুন

পরকীয়া প্রেমের রোমান্স

মুসলমান বাঙালির নামকরণ নিয়ে

এখন লিটল ম্যাগাজিন

যদিও সংকট এখন

খাবারে রঙ

সংস্কার নিয়ে

খেজুর রসের রকমারি

‘দ্য স্যাটানিক ভার্সেস’ পাঠ্যান্তে

মোবাইল সমাচার

ভালো কবিতা, মন্দ কবিতা

ভারতের কৃষিবিল যেন আলাদিনের চেরাগ-এ-জিন

বাঙালিদের বাংলা চর্চা : খণ্ড ভারতে

দাড়ি-গোঁফ নামচা

নস্যি নিয়ে দু-চার কথা

শীত ভাবনা

উশ্চারণ বিভ্রাট

কাঠঠোকরার খোঁজে নাসা

ভারতীয় ঘুষের কেত্তন

পায়রার সংসার

রবীন্দ্রনাথ এখন

কামতাপুরি ভাষা নিয়ে

আত্মসংকট থেকে

মিসেস আইয়ার

ফিরবে না, সে ফিরবে না

২০২১-শের কাছে প্রার্থনা

ভারতে চীনা দ্রব্য বয়কট : বিষয়টা হাল্কা ভাবলেও, সমস্যাটা কঠিন এবং আমরা

রাজনীতি বোঝো, অর্থনীতি বোঝো! বনাম ভারতের যুবসমাজ

কবিতায় ‘আমি’

ভারতে শুধু অমর্ত্য সেন নয়, বাঙালি সংস্কৃতি আক্রান্ত

ধুতি হারালো তার কৌলীন্য

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন...