shubhobangladesh

সত্য-সুন্দর সুখ-স্বপ্ন-সম্ভাবনা সবসময়…

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৩তম পর্ব

Little Magazine
Little Magazine

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৩তম পর্ব

জ্যোতি পোদ্দার

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৩তম পর্ব

বাইশ

ঢাকা কেন্দ্রিক সংগঠন ‘অনুপ্রাস’ শেরপুর শাখার যাত্রা ১৯৯২ সালে। মাহবুব মতিনের সাংগঠনিক তৎপরতায় শেরপুরের কবিদের নিয়ে। মতিন শেরপুরের কবি নন। পিতার কর্মস্থলের সুবাদে মতিনের শেরপুরে আগমন।

‘অনুপ্রাস’-এর ব্যানারে প্রকাশিত হয় ‘ধী’। ইউনিস প্রেসে ছাপা। মূল্য পাঁচ টাকা। কোনো সম্পাদকীয় নেই। প্রচ্ছদে রবীন্দ্রনাথের মুখচ্ছবির স্কেচ। একটি সংখ্যার পর আর বের হয়নি। পরবর্তী সময়ে অনুপ্রাসের আর কোনো কার্যক্রম চলেনি। তবে ‘ধী’তে প্রকাশিত কবিতা পাঠকের দৃষ্টি কেড়েছিল—জানালেন কবি রফিক মজিদ।

.

ক.

আকাশ ভেঙেছে বোমারু বিমান

নীলিমা ধোঁয়াতে ঢাকা

হৃদয় ভেঙেছে রূপসী নারী

চিনেছে যখন টাকা।

(টাকা : নূরুল ইসলাম মানিক)

খ.

অথচ আমি আঁকতে পারি

বলতে পারি নির্জনে,

এবং পতঙ্গের মতো আনন্দ আগুনে

জ্বলতে পারি

তোমার হৃদয় বীনার সুখটানে।

(পারি না অংক : রফিকুল ইসলাম আধার)

গ.

লাল টবে ফুটে রয় নিষিদ্ধ গোলাপ

লাল ঠোঁটে কেঁপে ওঠে নিষিদ্ধ প্রলাপ

(টুকরো কবিতা : কাকন রেজা)

ঘ.

ইদানীং বড় বেশি ভুল হয়ে যায়

পথ পেরোলেই নদী

অথচ নদীর সামনে

ত্রস্ত রাস্তায় শস্যের মাঠে

এক সূর্যোদয় হতে

আরেক সূর্যোদয়ে

সহসা পদব্রজে হয়ে উঠি

হঠাৎ পথিক

(ইদানীং : কাকন রেজা)

ঙ.

কৌতুহলী কাঠবিড়ালী

উঠল গিয়ে চোখের কার্ণিশে,

শেষ বিকেলে ভাসলো ছবি

জলের বার্নিশে।

(কৌতুহলী কাঠবিড়ালী : কাকন রেজা)

.

কাকন রেজার কবিতায় কোনো লুকানো ছাপানো বিষয় নেই। তাঁর কবিতার বয়ন ও বয়ান সারল্যে ভরা এবং ইঙ্গিতময়। আধুনিক ব্যক্তির ক্লেদ জরা যন্ত্রণা শ্লেষ রাজনৈতিকতা কাকনের কবিতাজুড়ে আছে। কাকনের কবিতার আমি একজন পাঠক। এখনো কোনো কাব্যগ্রন্থ কাকন রেজা করেননি। কাকন রেজার আরেকটি কবিতার কথা মনে পড়ছে।

.

‘কবিতার নামে বিলাই বাতাসে

সুখ দুঃখ দ্রোহ;

মানুষের আর কী-বা আছে

অথবা শোকের নামে

তুমুল বিদ্রোহ

কিংবা কাম অথবা প্রণয়

এসব কথার কথা

মৃত্যু ছাড়া আর কিছু নেই

থাকার কথাও নয়।’

(দ্রোহের গান : কাকন রেজা)

ঘ.

শহরের তাবৎ সুন্দরী হাতের মুঠোয় তুলে

ধেই ধেই নেচে যাই—এ রকম একটা মোহন

ইচ্ছে ভূঁইচাপা দিয়ে কবিতাকে কাছে ডাকতে চাই

কবিতা আমাকে নিতম্বের সৌন্দর্য দেখালো।

(দ্বিতীয় সবক : মাহবুব মতিন)

.

তেইশ

তালাত মাহমুদ গত শতাব্দীর সাত দশকের কবি। এই প্রান্তিক—শেরপুর ও জামালপুর—কবিদের নিয়ে প্রকাশ করছেন ‘আমরা তোমারই সন্তান’ সাহিত্য পত্রিকা। পত্রিকার যাত্রা শুরু ১৯৯৯ সালে।

কবি তালাত মাঠে প্রান্তরে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা নতুনদের তুলে আনছেন।নিজের কাগজকে তরুণের জন্য রেখেছে উন্মুক্ত চাতাল। গড়ে তুলেছেন ‘কবি সংঘ’। তিনি কবি সংঘের সভাপতি।

সাহিত্য আড্ডা কবিতা পাঠ বিভিন্ন দিবসভিত্তিক অনুষ্ঠানে আয়োজন করছেন কবি কণ্ঠে কবিতা পাঠ। সাহিত্যচর্চার জমিন উর্বর রাখতে আয়োজন করেছেন ‘কবি সন্মেলন’। এই হচ্ছে সদা কর্মতৎপর কবি তালাত মাহমুদ। শহরের পরিচিত মুখ। কবি তালাত মাহমুদ কবিতায় উচ্চকিত, উপরন্ত সরাসরি।

.

ক.

ফুলশয্যায় কার পাশে শুয়ে থাকি

সে তো আমার আসল মানুষ নয়

আমি কার সাথে ঘর সংসার করি

আমার অন্তরে তার চিহ্নমাত্র নেই।

(নীলকণ্ঠ বিশ্বস্ত স্বজন)

খ.

স্তন দাও

স্তন দাও গো বধূ

ক্ষুধার রাজ্যে সবাই

আমার মা।

(নৃশংস উচ্চারণ)

.

কবি তালাতের পত্রিকায় প্রকাশিত কয়েকজন নারী কবির কণ্ঠস্বর শুনে নেই এবার।

.

ক.

‘ভাঙা পুলের কিনারে হাঁপাচ্ছে কুকুর;

রোদের জলে জিয়ল মাছের মতো

হাঁসফাস করছে স্টেশনপাড়া

লোকাল বাস;

টিকেট কেটেও জল মেলে না—’

(দুপুর : কোহিনুর রুমা)

খ.

‘নৈঃশব্দের খুব কাছাকাছি

কেবলই হোঁচট খাই

রাতের আকাশে রূপালী নক্ষত্রের

কালো মখমলে

মনের রেশমী চাঁদরে মোড়ানো

ভালোবাসা

অভিমানে ঝরে পড়ে’

(ক্ষরণ : আইরিন আহমেদ লিজা)

গ.

‘আজ অনেকদিন পর

বৃষ্টিতে ভিজেও পেলাম না

তেমন কোনো স্বাদ।

বৃষ্টি আছে সুর নেই

স্যাঁতস্যাঁতে কাদা নেআ

মাথার উপর পায়ের নীচে

দুখানেই ছাদ।’

(বৃষ্টি : আতিয়া রহমান কণিকা)

ঘ.

‘পুরনো কথা আর পুরনো সেই ব্যথা

পুরনো স্মৃতি আর পুরনো আকুলতা

নবপল্লবের মতো মুখে ফুটে না নতুন কথা

সব মিলিয়ে আমি এখন পুরনো গীতিকথা।’

(পুরনো গীতিকথা : সানজিদা শারমিন সুরমা)

ঙ.

শূন্যতায় চোখ রাখো, দেখা হবে

নিমজ্জিত করে কর্ণ যুগল, শুনতে পাবে

তোমাকে ভালোবাসার ডাক জনম জনমের।’

(আমার চোখে : আসমা জামান)

.

এ ছাড়া আছে—রত্না কর, মাছুমা আক্তার, কামরুন নাহার জ্যোতি, জান্নাতুল মাওয়া জেনি। মারজানা খান মৌরী। প্রতিশ্রুতশীল মৌরী আমাদের মাঝে নেই।

.

ক.

তুমি কবিতা হলে

আমি অক্ষর

দুই-এ মিলে গল্প সাজাই

গড়ি স্বপ্নলেকের ঘর।

খ.

বাতাসই আগুন জ্বলে

বাতাসই নিভায়

বাতাসই নিজেকে জ্বালিয়ে

আলোর শিখা ছড়ায়।

(শিরোনামহীন : মারজানা খান মৌরী)

.

কবি তালাত মাহমুদ তাঁর সাংগঠনিক তৎপরতা—কবিতার জন্য কবির জন্য জারি রেখেছে। জানালেন, এ পর্যন্ত ‘আমরা তোমারই সন্তান’ ত্রিশটি সংখ্যা বের হয়েছে।

(চলবে)

…………………

পড়ুন

কবিতা

রাংটিয়া সিরিজ : জ্যোতি পোদ্দার

তিলফুল : জ্যোতি পোদ্দার

জ্যোতি পোদ্দারের কবিতা

প্রবন্ধ-গবেষণা

টাউন শেরপুরে প্রথম রবীন্দ্রজয়ন্তী

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা

১ম পর্ব । ২য় পর্ব । ৩য় পর্ব । ৪র্থ পর্ব । ৫ম পর্ব । ৬ষ্ঠ পর্ব । ৭ম পর্ব । ৮ম পর্ব । ৯ম পর্ব । ১০ পর্ব । ১১তম পর্ব । ১২তম পর্ব । ১৩তম পর্ব । ১৪তম পর্ব । ১৫তম পর্ব । ১৬তম পর্ব । ১৭তম পর্ব । ১৮তম পর্ব । ১৯তম পর্ব । ২০তম পর্ব । ২১তম পর্ব । ২২তম পর্ব । ২৩তম পর্ব

Spread the love