shubhobangladesh

সত্য-সুন্দর সুখ-স্বপ্ন-সম্ভাবনা সবসময়…

প্রচলিত এক শকুনির গল্প

The story of a common vulture

প্রচলিত এক শকুনির গল্প

সুনীল শর্মাচার্য

প্রচলিত এক শকুনির গল্প

এক বিরাট তাল গাছ। তার সুউচ্চ ডালে বাস করে এক শকুন-শকুনি। দুজনকে ভালোবেসে তারা লিভ-টুগেদার করছে বেশ কিছুদিন। মানুষের মতো ওদেরও জীবন পাশ্চাত্যের হাওয়ায় বেশ খোলামেলা। লিভ-টুগেদার। অতএব প্রেম। অতএব সন্তান। শকুন উধাও। সন্তান মানে বাচ্চার দায়-দায়িত্ব তখন শকুনির।

বাচ্চা ধীরে ধীরে বড় হলো। বড় হতেই মা-শকুনির কাছে নিত্য-নতুন বায়না। শকুনি জান-মান দিয়ে তার বাচ্চার বায়না মেটায়। কখন এর মাংস। কখন তার মাংস। মানে মরা-পচা-গলা ইঁদুর, সাপ, ব্যাঙ, গরু, ছাগল ইত্যাদি।

একদিন বাচ্চাটা মা-শকুনির কাছে বায়না ধরলো—মা, আমি মানুষের মাংস খাব, এনে দাও না প্লিজ! শকুনি বলল—ঠিক আছে বেটা, সন্ধ্যার সময় এনে দেব। শকুনি উড়ে গেল আর আসার সময় বাচ্চার জন্য শূকরের মাংস নিয়ে এলো।

বাচ্চা বলল—মা, এটা তো শূকরের মাংস, আমি মানুষের মাংস খেতে চাই। মা বলল—ঠিক আছে বেটা, এনে দেব। শকুনিটা উড়ে গেল আর আসার সময় এক মরা গরুর মাংস নিয়ে এলো।

বাচ্চা বলল—আরে এটা তো গরুর মাংস নিয়ে এসেছো, মানুষের মাংস কোথায়? তখন শকুনিটা উড়ে গেল আর শূকরের মাংস একটা মসজিদের পাশে আর গরুর মাংস একটা মন্দিরের পাশে ফেলে দিয়ে চলে এলো।

কিছুক্ষণের মধ্যেই সেখানে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় কয়েকশ মানুষের লাশ পড়ে গেল। মা আর বেটায় মিলে খুব তৃপ্তিতে মানুষের মাংস খেল।

বাচ্চাটা খেতে খেতে জিজ্ঞেস করল—মা, এত মানুষের মাংস এখানে কী করে এলো? শকুনি বলল—এই মানুষ জাতটাই এরকম রে! ঈশ্বর তো ওদেরকে মানুষ বানিয়ে জন্ম দিয়েছেন, কিন্তু ধর্মের নামে এদেরকে জানোয়ার থেকেও হিংস্র বানানো যেতে পারে! এতদিন এসব কাজ রাজনৈতিক নেতা-মন্ত্রীরা করে মানুষের মধ্যে দাঙ্গা লাগিয়ে রক্তগঙ্গা বইয়ে দিতো, আজ সেই কাজটা আমিই করলাম রে!

…………………

পড়ুন

গল্প

উকিল ডাকাত : সুনীল শর্মাচার্য

এক সমাজবিরোধী ও টেলিফোনের গল্প : সুনীল শর্মাচার্য

আঁধার বদলায় : সুনীল শর্মাচার্য

মুকুন্দ

সাতটি মিনি গল্প

প্রচলিত এক শকুনির গল্প

কবিতা

সুনীল শর্মাচার্যের একগুচ্ছ কবিতা

সুনীল শর্মাচার্যের ক্ষুধাগুচ্ছ

লকডাউনগুচ্ছ : সুনীল শর্মাচার্য

সুনীল শর্মাচার্যের গ্রাম্য স্মৃতি

নিহিত মর্মকথা : সুনীল শর্মাচার্য

প্রয়াণগাথা : সুনীল শর্মাচার্য

সুনীল শর্মাচার্যের কবিতাগুচ্ছ

অন্যভুবনের কবিতা

ঘোড়া : সুনীল শর্মাচার্য

মুহূর্তের কবিতা

অনুভূতি বেজে ওঠে

আমার কবিতা

সনেটগুচ্ছ

সুনীল শর্মাচার্যের সনেটগুচ্ছ

ভারতীয় লিমেরিক

সনেট পঞ্চ

Spread the love