বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৫সত্য-সুন্দর সুখ-স্বপ্ন-সম্ভাবনা সবসময়...

ছোটকাগজ

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৭তম পর্ব (শেষ পর্ব)
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, বিশেষ প্রথম, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৭তম পর্ব (শেষ পর্ব)

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৭তম পর্ব (শেষ পর্ব) জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৭তম পর্ব সাইত্রিশ ‘গুণগত মান বিচার্য নয় বরং প্রকাশনাই মুখ্য।’ শেরপুর সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের ‘বার্ষিকী ৯০’-এ শুভেচ্ছা বাণীতে লিখেছেন অধ্যক্ষ সৈয়দ আবদুল হান্নান। স্থানিক পর্যায়ে যে সকল পত্রিকা ম্যাগাজিন স্মরণিকা বের হয়, তার পেছনে মূলত এ-কথাই জারি থাকে। এখানেই প্রকাশিত হয় তরুণের ভাব-উচ্ছাস। সাহিত্য করবার হাতেখড়ি। আরো বিশদে বলতে গেলে ভাবী কালের কবি-লেখকদের আঁতুরঘর। হোক সে পাড়ার ক্লাবের ভাঁজপত্র কিংবা স্কুল-কলেজের ম্যাগাজিন। তরুণ শিক্ষার্থী যেমন, তেমনি শিক্ষক-শিক্ষিকাদের কবিতা, গল্প, নিবন্ধ বা উপদেশমূলক লেখাপত্র প্রকাশের পরিসর। কালো অক্ষরে ঝকঝকে কাগজে নিজের নামটি দেখা বা দেখাবার স্পেসে যে লাজুকতা মনের গহীনে কাজ করে—যা শুধু অনুভবই করা যায়, প্রকাশ করা যায় না ভাষায়। বার্ষিকী’৯০ ম...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৬তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৬তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৬তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৬তম পর্ব ছত্রিশ ‘অরুনোপল’ এক স্বপ্নবাজ তরুণদের সংগঠন। মানবিক চেতনায় উজ্জ্ববীত একটি সামাজিক সংগঠনের প্লাটফর্ম। দলের কাণ্ডারী রমিজুল ইসলাম লিসান। ‘we have committed to bring change in socioeconomic affairs.’ লিসান তাঁর অরুনোপল ফেইসবুক পেইজে লিখেছেন, ‘AUROPPLE is a people's oriented local entrepreneurship.’ অরুনোপলের সাহিত্য সংস্কৃতির সমাচার ‘উৎস্বর্গ’ প্রকাশিত হয় ১ পৌষ ১৪২৫ সালে উদ্বোধনী বিশেষ সংখ্যা হিসেবে। যদিও ‘২০১৩ সালেই উৎস্বর্গের যাত্রা ভাঁজপত্র আকারে, সীমিত পরিসরে।’ ‘উৎস্বর্গের’ আয়োজন চমৎকার। প্রবন্ধ-নিবন্ধের পাশে আছে যেমন কাজী নজরুল ইসলাম, জসীমউদ্‌দীন, সুকান্ত ভট্টাচার্য, আহসান হাবীব, হুমায়ূন আজাদ, মহাদেব সাহা, নির্মলেন্দু গুণ, তেমনি আছে টাউন শেরপুরের এই দশকের তরুণ কবিদের কবিতা। হাসান...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৫তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৫তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৫তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৫তম পর্ব পয়ত্রিশ ‘বিহানকে আমরা ঠিকঠাক নিরীক্ষার কাগজ হিসেবেই দেখতে চাই।’ লিখেছেন সম্পাদক পরিষদ। চারজন মাঝি বিহানের। সুহৃদ জাহাঙ্গীর, রবিন পারভেজ, বিপুল দাম হৃদয় ও দুপুর মিত্র। যদিও প্রথম সংখ্যার পর অপর তিন সম্পাদকের সাথে মতবিরোধিতার কারণে কবি সুহৃদ জাহাঙ্গীরকে অব্যবহতি দেয়া হয় সাংগঠনিক তৎপরতার ভেতর দিয়ে, লিখিতভাবে এবং যুক্ত হন ইংরেজি সাহিত্যের শিক্ষক ও কবি মনোয়ার হোসেন মুরাদ। বিহানের যাত্রা ২০১৮, ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে। ষান্মসিক সাহিত্যের নিরীক্ষার এক ফর্মার মুখপত্র। বিহানের শুরু ‘একগুচ্ছ নীতিমালা’কে সামনে রেখে। এটি টাউন শেরপুরে একটি উল্লেখযোগ্য দিক। ছোটকাগজ চর্চার নীতিগত অবস্থান। একটি মতাদর্শকে আশ্রয় করে সাহিত্য সম্পাদনা চালিয়ে যাবার নৈতিক দিশা। এই দিশা না-থাকলে ছোটকাগজ শুধু প্রকাশই পায় সাহ...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৪তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৪তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৪তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৪তম পর্ব চৌত্রিশ পত্রিকার নাম ‘সপ্তডিঙ্গা মধুকর’। বাংলার যাপন স্মৃতিতে ও সাহিত্যে নামটি এখনো জারি আছে; চাঁদ সওদাগরের বরাতে। মনসামঙ্গল কাব্যে। বিশাল বাণিজ্য ডিঙ্গী নিয়ে চাঁদের কায়কারবার। সেই নামটি নিলেন সম্পাদক মুগনিউর রহমান মনি। ‘সৃজনশীল সাহিত্য সংস্কৃতি বিষয়ক প্রকাশনা’ হিসেবে দুই হাজার দুই সালে। প্রথম সংখ্যাটি দুই ফর্মা। অফসেটে পরিচ্ছন্ন মুদ্রণ। ছিল ছবি ও ইলাস্ট্রেশানের ব্যবহার। পরবর্তী সংখ্যা ট্যাবলেট সাইজের আট পাতার ত্রৈমাসিক কাগজ। কিন্তু দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। চাঁদের ‘সপ্তডিঙ্গার মধুকর’ ডুবেছিল মনসা দেবীর কূটচালে—আর মনি’র মধুকর অর্থের অভাবে, পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে। মনি লিখেছেন, ‘আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ও বিশ্বায়নের যুগেও শিল্প সাহিত্য সংস্কৃতির চর্চায় মফস্বল শহরে পূর্বের তুলনায় দিন দিন অনীহার ...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৩তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩৩তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৩তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩৩তম পর্ব তেত্রিশ ‘ক্ষয়’ (২০১০) সম্পাদক সুরঞ্জন ঘোষ। প্রচ্ছদও তার। ‘ক্ষয়’ আমাদের ভেতরে-বাইরে; সারাঅঙ্গে’। সম্পাদক লিখেছেন, ‘জাতীয় জীবন থেকে শুরু করে ব্যক্তি জীবন পর্যন্ত মানবাত্মার ক্ষয় আজ লক্ষণীয়।’ এই ক্ষয়ের রক্ত ক্ষরণ নিয়ে সুরঞ্জন বেশিদিন মাঠে থাকেননি। কাগজের পরবর্তী সংখ্যা আর আলোর মুখ দেখেনি। যদিও পরবর্তী সময়ে সুরঞ্জন ঘোষ অপরাপর সাংস্কৃতিক কর্মতৎপরতায় নিজেকে যুক্ত রেখেছে। গড়ে ব্যান্ড দল ‘নকশাতীত’। ‘বিন্দু’ স্বজন বিবাগীর কাগজ। প্রচ্ছদ করেছেন সুরঞ্জন ঘোষ, আবার কখনো কাজী মৃনাল। পেনসিল স্কেচের প্রচ্ছদ। সম্পাদক স্বজন লিখেছেন, ‘প্রত্যেক মানুষ এবং মানুষের নিজস্ব চিন্তার সমন্বয়ে গড়ে ওঠে ব্যক্তিগত সংগঠন।’ ব্যক্তি নিজেই একটি সংগঠিত রূপ। বিন্দুতে লিখেছেন—সুমন দাস রানা মৃধা, রত্না কর, অবনী অন...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩২তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩২তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩২তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩২তম পর্ব বত্রিশ ভাঁজপত্র বা দেয়ালিকার তথ্য-উপাত্ত পাওয়া কিছুটা কষ্টকর। দিবসভিত্তিক দলবদ্ধ তরুণেরা বিভিন্ন সময় বের করেছে; নিয়মিত নয়—অনিয়মিত। লেটার প্রেসের যুগে ভাঁজপত্র বের করা যতটুকুর কষ্টসাধ্য ছিল, শেরপুর টাউনে কম্পিউটার সহজলভ্যতার কারণে পরবর্তী সময়ে কম্পোজ করে ফটোকপির ভাঁজপত্র বের করার প্রাধান্য লক্ষণীয়। ভাঁজপত্র তরুণের কবিতাচর্চার পাটাতন। নিজেকে বিকশিত করবার আঁতুড় ঘর। ভাঁজপত্র প্রচার-প্রসারের ব্যাপকতা বিদ্যমান, কিন্তু তরুণদের নিজেদের মাঝেই বিতরণ কাজটি সম্পন্ন হবার কারণে ভাঁজপত্রের তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা বেশ কষ্টকর। টাউন শেরপুরের তরুণেরা ভাঁজপত্র প্রকাশ করছে, অথচ পরস্পরের আদান-প্রদান নেই। নেই ভাব ভাবনার বিনিময়। একই শহরে একই সময়ে বের হচ্ছে, অথচ অপরের কাজ সম্পর্কে জানতে চাইলে একই উত্...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩১তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩১তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩১তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩১তম পর্ব একত্রিশ শিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক ম্যাগাজিন ‘রঙধনু’। ২০০৫ সাল থেকে যাত্রা। মূলত একুশে সংকলন। রঙধনু শিক্ষা পরিবারের নিয়মিত প্রকাশনা। সম্পাদক এনামুল হক লিখেছেন, ‘আমি আমার রক্তের মাঝে দারুণ এক আনন্দ অনুভব করছি। টাকা-পয়সার আনন্দ না, ক্ষমতার চূড়ান্ত শিখরে বসার আনন্দ না—এ আনন্দের কাছে পৃথিবীর সকল আনন্দ তুচ্ছ; এই আনন্দ হলো বইমেলার আনন্দ; লিটলম্যাগ প্রকাশের আনন্দ।’ সম্পাদক যথার্থই বলেছেন। সৃষ্টিশীলতার আনন্দ উল্লাসই ইতিবাচক সমাজ গঠনের পূর্বশর্ত। কবিতা, গল্প, ছড়া ও প্রবন্ধে সাজানো ‘রঙধনু’। এই সংখ্যায় শামসুজ্জামান খান লিখেছেন, ‘বইমেলার ইতিহাস ও নতুন আঙ্গিকে বইমেলা’। ২০১৪ সালে রাজনীতি, কবিতা, সংগঠক ও সংগঠন ক্ষেত্রে যাদের ভূমিকা রয়েছে—তাদেরকে প্রদান করা হয় ‘রঙধনু অ্যাওয়ার্ড ২০১৪’। এনামুল হক উদ...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩০তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ৩০তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩০তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ৩০তম পর্ব ত্রিশ গারো আর্থ-সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক চিত্রের একটি অনবদ্য বার্ষিক সংকলন ‘ব্রিংনি বিবাল’। বড়দিন ও নববর্ষ সংখ্যা প্রকাশিত হয় ২০০৯ সালে মরিয়মনগর থেকে। ব্রিংনি বিবালের অর্থ বনের ফুল। সম্পাদক টিটু রাকসাম। গত শতকের আটের দশক থেকে প্রকাশ। এ সংখ্যায় লিখেছেন—সঞ্জিব দ্রং, বাঁধন আরেং, লিপা চিসিম, সোহেল ম্রং প্রমুখ। নিষ্কৃত হাগিদক ‘অবকাশ নয়, চাই গাজনী গ্রাম’। নিবন্ধে লিখেছেন ‘এই তিনটি লেক বহু গারো পরিবারের ভূমি গ্রাস করেছে। তোমরা এর প্রবাহধারাকে বল প্রবাহিণী, আমি বলি তারে অশ্রুধারা; তোমরা একে শুধু বল জল, আমি বলি তারে চোখের জল। কারো আবাদী জমি, কারো জুম জমি, কারো আনারস, আম বা কাঁঠাল বাগান, কারো একমাত্র সম্বল দু’বিঘা ভিটেমাটি দখল করে গড়া এই গজনী অবকাশ। তোমরা এর মাঝে খুঁজে পাও নয়নাভিরাম দৃ...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৯তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৯তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ২৯তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ২৯তম পর্ব ঊনত্রিশ টাউন শেরপুরে শারদীয় পূজা সংখ্যা ‘মার্চেন্ট ক্লাব’ নয় আনী বাজারে তরুণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন। প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৭৪। ক্লাবের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে প্রকাশ করেন চার কালারের একটি স্মরণিকা। ‘আদ্যা’ (২০১৪)। সস্পাদক রাজন সরকার রাজু। সভাপতিমণ্ডলীর উপদেষ্টা শিব শংকর কারুয়া। শিব শংকর এই শহরের একজন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব। সকলের প্রিয় মুখ। শিশু-কিশোর সংগঠন থেকে শুরু করে নাটক সংগঠন—বিভিন্ন ক্ষেত্রে তিনি কার্যকর ভূমিকা রেখে চলছেন। প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি ছিলেন নারায়ণ চন্দ্র সরকার ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন বলরাম কর্মকার। দুর্গাপুজা উপলক্ষে এই বিশেষ সংকলনে লিখেছেন—ড. সৌমিত্র শেখর, তৎকালীন শেরপুরের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর রাজিব সরকার, জীবন কৃষ্ণ বসু, শিব শংকর কারুয়া, সন্ধ্যা রায় ও সঞ্জিব চন্দ বিল্টু...
শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৮তম পর্ব
ছোটকাগজ, প্রবন্ধ-গবেষণা, সাহিত্য

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা – ২৮তম পর্ব

শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ২৮তম পর্ব জ্যোতি পোদ্দার শেরপুরে ছোটকাগজ চর্চা - ২৮তম পর্ব আটাশ স্থানিক সাহিত্যচর্চার পাটাতন শুধু সাহিত্য পত্রিকা বা স্মরণিকা নয়। আরো কিছু পাটাতন জারি থাকে সবসময়। সেটি স্থানিক সাহিত্যচর্চার বৈশিষ্টও বটে। হোক সে জেলা সমিতির প্রকাশনা বা কোনো ব্যবসায়ী সমিতির বার্ষিক প্রতিবেদনের ক্রোড়পত্র অথবা প্রেসক্লাবের সাময়িকী। শেরপুর সাংবাদিক পরিষদের মুখপত্র পত্রিকা দুই হাজার দুই সালে কবি আরিফ হাসানের সম্পাদনায় প্রকাশিত। সেখানে লিখেছেন—সুজন সেন, আবদুর রেজ্জাক, কায়রুজ্জামান কামাল, কাকন রেজা প্রমুখ। বাঙালি কবিতা অন্তপ্রাণ। কাজে কাজেই কবিতা, ছড়া থাকবে না সেটি হয়? স্থানিকে ব্যবসায়ী সমাজের সংগঠন চেম্বর অব কর্মাসের বার্ষিকীতে আয়-ব্যয়ের দাখিলার পাশাপাশি কবিতা, ছড়া প্রকাশিত হয় প্রেসক্লাব বা ক্রীড়া ক্লাবের সাময়িকীতে কখনো কখনো ইতিহাসচর্চা হয়। খেলাধূলার...